May 1, 2020
আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মুক্তির চেয়েছেন সাতক্ষীরাসহ দেশের বিশিষ্টজনরা

আলোরপরশ: সাতক্ষীরা: মানবিক, ধর্মীয় ও বয়স বিবেচনায় আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীকে মুক্তি দিতে সরকারের প্রতি বিশেষ অনুরোধ জানিয়েছেন সাতক্ষীরা জেলার শীর্ষ উলামায়ে কেরাম। শুক্রুবার এক যৌথ বিবৃতিতে তারা এ আহ্বান জানান।বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন,মুহাদ্দীস আব্দুল খালেক,হাফেজ রবিউল বাশার, পীরে কামেল মাওলানা নেছার উদ্দীন আহম্মেদ,মাওলানা আব্দুল বারীসহ জেলার শীষ সহস্রাধীক উলামায়ে কেরাম। এছাড়া সাতক্ষীরা আইনজীবিদের মধ্য থেকে এড.আজিজুল ইসলাম, এড.বাশারাতউল্লাহ আরঙ্গী,আব্দুস সুবহান মুকুল এড.আবু বক্কর ,এড হাফিজুর রহমানসহ দুইশতাধীক আইনজীবি আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীকে মুক্তির দাবী জানিয়েছেন। একই দাবী জানানো হয়েছে জেলার শিক্ষক সমাজ, সাংবাদিক বৃন্দু,অধ্যাপক ডাক্তার,বুদ্ধিজীবিসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেষার মানুষ।।

এদিকে সম্প্রতি  একই  দাবীতে আওয়ামীলীগের সাবেক এমপি গোলাম মাওলা রনি, ভিপি নুরুল ইসলাম নূর,মাওনানা আজহারীসহ সমাজের র্সবস্তরের মানুষ  আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীকে মুক্তি দিতে সরকারের প্রতি বিশেষ অনুরোধ জানিয়েছেন

মুক্তি চেয়ে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা একটি   আজ বৃহস্পতিবার রাতে একটিবিবৃতি দিয়েছেন।   প্রফেসর আহসান ইমরোজের সই করা ওই বিবৃতিতে তারা বলেন, দীর্ঘ ৫০ বছর ধরে দেশে বিদেশে কুরআনের তাফসির পেশ করেছেন। জাতীয় সংসদে দু’বার নিজ এলাকা থেকে তিনি জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি দেশ ও জাতির কল্যাণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন।

শিক্ষকেরা বলেন, আমরা শিক্ষকবৃন্দ গভীর উদ্বেগের সাথে লক্ষ্য করছি যে, তিনি আজ ১০ বছর যাবৎ কারাগারে বন্দী রয়েছেন। বর্তমানে তার বয়স ৮১ বছর। তিনি বিগত ৪০ বছর যাবত ডায়াবেটিক রুগী। তিনি দীর্ঘদিন যাবত হৃদরোগেও আক্রান্ত। তার হার্টে ৫টি রিং বসানো। তিনি আর্থাইটিস রোগেও আক্রান্ত। যে কারনে তার হাঁটু ও কোমরে আছে তীব্র ব্যথা। এছাড়া বার্ধক্যজনিত নানা সমস্যাতেও তিনি আক্রান্ত। এহেন অবস্থায় তার সুস্থ ও স্বাভাবিক জীবন নিশ্চিত করতে মুক্ত জীবনের কোনো বিকল্প নেই।

নিম্নোক্ত শিক্ষকেরা বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন,প্রফেসর মুজিবুর রহমান, সাবেক কোষাধক্ষ্য এশিয়ান ইউনির্ভাসিটি অব বাংলাদেশ; প্রফেসর আসিফ মিজান হেড অব দ্যা ডিপার্টমেন্ট অব জিপি; প্রফেসর মো: আবদুল্লাহ সাবেক পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক; প্রফেসর মো: মুসা সাবেক প্রফেসর গণিত বিভাগ,সহ শতাধীক শিক্ষক।প্রেস বিজ্ঞপ্তি

মানবিক, ধর্মীয় ও বয়স বিবেচনায় আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীকে মুক্তি দিতে সরকারের প্রতি বিশেষ অনুরোধ জানিয়েছেন দেশের শীর্ষ উলামায়ে কেরাম।  এক যৌথ বিবৃতিতে তারা আহ্বান জানান।

বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন, বর্ষীয়ান আলেমে দ্বীন হেফাজতে ইসলামের সিনিয়র নায়েবে আমীর মাওলানা মুহিববুল্লাহ বাবুনগরী, বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলনের আমীর হাফেজ মাওলানা আতাউল্লাহ ইবনে হাফেজ্জী হজুর, ইসলামী কানুন বাস্তবায়ন পরিষদের আমীর মাওলানা আবু তাহের জিহাদী, সমমনা ইসলামী দলসমূহের মহাসচিব মাওলানা জাফরুল্লাহ খান, সম্মিলিত উলামা মাশায়েখ পরিষদের সহ-সভাপতি মাওলানা মহিউদ্দীন রব্বানী, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অধ্যক্ষ মাওলানা যাইনুল আবেদীন, হেফাজতে ইসলামের নায়েবে আমীর মুফতি ইজহারুল ইসলাম চৌধুরী, হেফাজতে ইসলামের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী, ড. মাওলানা খলিলুর রহমান মাদানী, হক্কানী পীর মাশায়েখ পরিষদের মহাসচিব শর্ষীনার ছোট পীর মাওঃ শাহ আরিফ বিল্লাহ সিদ্দীকি, মীরের সরাইর পীর সাহেব মাওঃ আঃ মোমেন নাছেরী,টেকের হাটের পীর সাহেব মাওঃ কামরুল ইসলাম সাঈদ আনসারী, মুফতি ফয়জুল হক জালালাবাদী, মুফতি মাওলনা আবদুর রহমান চৌধুরী, নেজামে ইসলামীর মহাসচিব মাওলানা মুসা বিন ইজহার, প্রমুখ।

মুক্তর দাবী জানিয়েছে  বাংলাদেশের শীর্ষ আলেম আল্লামা আজিজুল হক (রহ:)-এর ছেলে বাংলাদেশ খেলাফত যুব মজলিসের কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা মুহাম্মাদ মামুনুল হক, লক্ষ্মীপুরের প্রবীণ মুফাসসিরে কুরআন ড. মাওলানা লুৎফুর রহমান, ঢাকার আল্লামা তারিক মুনাওয়ার, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়য়ের প্রফেসর ডক্টর আব্দুস সালাম মাদানী, বরিশালের অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক, সিলেটের হজরত মাওলানা আবুদল মতিন শাহবাগী, মাওলানা আব্দুস সালাম মাদানী, চট্টগ্রামের মাওলানা হারুনুর রশিদ, প্রফেসর ড. বি এম মফিজুর রহমান আজহারী, খুলনার হজরত মাওলানা মনোয়ার হোসেন মাদানী, কুষ্টিয়ার এনামুল হক শাফি, রংপুরের মাওলানা আতাউল গনী ওসমানী, চরমোনাইর মরহুম পীর সাহেব মাওলানা ইসহাক (রহ:)-এর সাহেবজাদা সাইয়েদ ফেরদাউস বিন ইসহাক, ছারছীনার ছোট পীর শাহ আরিফ বিল্লাহ সিদ্দিকী, মিরেরসরাই পীর মাওলানা আব্দুল মোমেন নাছিরী, টেকেরহাটের পীর আল্লামা সাইয়েদ কামরুল ইসলাম সাঈদ আনসারী, মুফাসসিরে কুরআন মাওলানা রাফি বিন মনির সিফাত হাসান, মাওলানা সাইমুম সাদী, জমিয়াতুল মুফাসসিরিনের সভাপতি মাওলানা আব্দুস সোবাহান, বাংলাদেশ জাতিয় মুফাসসির পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি মুহাদ্দিস আমিরুল ইসলাম বেলালীসহ দেশের শীর্ষ ওলামা হজরত ও পীর-বুজুর্গ বিভিন্ন মাধ্যমে আল্লামা সাঈদীর মুক্তি দাবি করেন।

ন্যাশনাল ডক্টরস ফোরাম : এ দিকে করোনা পরিস্থিতি বিবেচনা করে মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মুক্তির আবেদন করেছে চিকিৎসকদের পেশাজীবী সংগঠন ন্যাশনাল ডক্টরস ফোরাম। গতকাল শনিবার এক বিবৃতিতে সংগঠনের সভাপতি অধ্যাপক মো: নজরুল ইসলাম স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে বলা হয়, বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বে করোনাভাইরাস মারাত্মক আকার ধারণ করেছে।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের হার বয়স্কদের মধ্যে অনেক বেশি। বর্তমানে কারাবন্দী এবং ১৯৯৬ ও ২০০১ সালে নির্বাচিত জাতীয় সংসদ সদস্য, নন্দিত আলেম ও আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মোফাসসিরে কুরআন মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদী পচাত্তরোর্ধ একজন বৃদ্ধ। এ ছাড়াও তিনি একজন ডায়াবেটিস রোগী, একই সাথে তিনি একজন হার্টের রোগী। তার হার্টে একাধিক রিং পরানো আছে। উপরন্তু তার রয়েছে ফ্রোজেন শোল্ডার সমস্যা। ডায়াবেটিস ও হার্ট ডিজিজে আক্রান্তদের মধ্যে করোনাভাইরাস সংক্রমণের আশঙ্কা অনেক বেশি। অধ্যাপক নজরুল ইসলাম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে ‘এসব মানবিক দিক বিবেচনা করে করোনার ঝুঁকিতে থাকা অসুস্থ মাওলানা সাঈদীর কারামুক্তির আবেদন করেন।’ বিজ্ঞপ্তি।

More News


সম্পাদক র্কতৃক প্রকাশিত

e-mail: alorparosh@gmail.com