November 19, 2019
সাতক্ষীরাসহ সারাদেশে লবণকাণ্ডে ১৭ ব্যবসায়ীকে আটক, ১৮ জনকে জরিমানা

আলোরপরশ নিউজ: সাতক্ষীরা: লবণের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে অতিরিক্ত মূল্যে লবণ বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। সারাদেশ দিনভর দফায় দফায় লবণে দাম বেড়েছে। ২০ টাকা একজি দরের লবণ ১২০ টাকায় বিক্রি হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধির সুযোগকে কাজে লাগিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে হঠাৎ করে লবণের দাম বেড়েছে বলে গুজব ছড়ানো হচ্ছে। এ গুজবে কান না দিতে সাধারণ মানুষকে সরকারের পক্ষ থেকে সতর্ক করা হয়েছে।

পাশাপাশি গুজব ছড়ানো ও বেশি দামে লবণ বিক্রির দায়ে বিভিন্ন জেলায় ১৭ জনকে আটক ও কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি ১৮ জন ব্যবসায়ীকে ৩ লাখ ৭০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। আর পটুয়াখালীতে অতিরিক্ত লবণ কেনায় ২ ক্রেতাকে জরিমানা করা হয়েছে।সাতক্ষীরায় দোকানদার ও ক্রতাকে মারধর করা হয়েছে।

আটক ও দণ্ডপ্রাপ্তদের মধ্যে রয়েছেন রাজশাহীতে ৩ জন, নীলফামারীর ডোমারে ৩ জন, নেত্রকোনার খালিয়াজুরীতে ১ জন, নারায়ণগঞ্জে ১ জন, ঠাকুরগাঁওয়ে ৩ জন, বরিশালের গৌরনদীতে ২ জন, লালমনিরহাটে ৪ জন ব্যবসায়ী।

এছাড়া হবিগঞ্জ মাধবপুরে ৮ ব্যবসায়ীকে ৫১ হাজার টাকা, নেত্রকোনা মদন ২ ব্যবসায়ীকে ৪ হাজার টাকা, ঠাকুরগাঁওয়ে ২ ব্যবসায়ীকে ১ লাখ টাকা, পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় ২ ব্যবসায়ীকে ২৫ হাজার টাকা, টাঙ্গাইলের সখীপুরে ১ ব্যবসায়ীকে ১ লাখ টাকা, লালমনিরহাটের আদিতমারীতে ১ ব্যবসায়ীকে ৩০ হাজার টাকা, ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে ২ ব্যবসায়ীকে ৬০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

সাতক্ষীরা:সাতক্ষীরায় লবণের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে অতিরিক্ত মূল্যে লবণ বিক্রির  ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়েছে।সাতক্ষীরায় লবণ নিয়ে তুলকালাম শুরু হয়। সকাল থেকে জেলার মুদি দোকান গুলোতে লবন ক্রেতাদের ভিড় লেগে থাকে। ২০টাকার লবন বিক্রি হচ্ছে একশ টাকায়। সন্ধার দিকে জেলার বেশির ভাগ মুদি দোকান গুলোতে লবণ সংকটের গুজোব ছড়িয়ে পড়ে। এদিকে পেয়াজ, লবণ, চাউলসহ নিত্য পণ্যের মূল্য স্থিতিশীল রাখতে ও এ সংক্রান্ত গুজব প্রতিরোধের লক্ষ্যে সুলতানপুর বড় বাজার পরিদর্শন করেছেন সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল।মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) জেলা প্রশাসক সরেজমিনে বাজার পরিদর্শন করে পেয়াজ, লবণ, চাউলসহ বিভিন্ন পণ্যের মূল্য যাচাই করেন।এছাড়া আজ সন্ধা থেকে  রাত ১০টা র্পযন্ত সুলতান পুর বড় বাজারের জেলা প্রশাসনের বাজার মনিটারং করতে দেআ যায়। এছাড়া জেলার বিভিন্ন বাজার ও দোকান গুলোতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।জেলা প্রশাসক ক্রেতা ও বিক্রেতাদের সাথে কথা বলেন এবং যারা পণ্য মজুদ রেখে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে মূল্য বৃদ্ধি করবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনী ব্যবস্থা গ্রহণের ঘোষণা দেন। একই সাথে তিনি মেয়াদ উত্তীর্ণ পণ্য বিক্রি না করা ও প্রত্যেক দোকানে পণ্য মূল্যের তালিকা টাঙানোর নির্দেশনা দেন।
জেলা প্রশাসক বলেন, সরকার পেঁয়াজ আমদানি করছে। পেঁয়াজের দাম আরও সহনীয় মাত্রায় চলে আসবে।
তিনি বলেন, সম্প্রতি লবণের মজুদ নিয়ে যে গুজব ছড়ানো হচ্ছে, তা সঠিক নয়। এতে কেউ কান দেবেন না।
বাজার পরিদর্শনকালে তার সাথে আরও উপস্থিত ছিলেন, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দেবাশীষ চৌধুরী, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইন্দ্রজীত সাহা ও বাজার বিপণন কর্মকর্তা।দেবহাট প্রতিনিধি: পেয়াজের পর লবণ সংকটের গুজব ছড়িয়ে অধিক মূল্যে বিক্রয়ের অভিযোগে সখিপুর বাজার পরিদর্শন করেছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাজিয়া আফরিন। মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) সন্ধা ৭ টায় সখিপুর বাজারে বিভিন্ন মুদি ব্যাবসায়ী ও সাধারন মানুষের সাথে কথা বলেন এবং পেয়াজ, লবণ, চাউলসহ বিভিন্ন পণ্যের মূল্য যাচাই করেন। এসময় উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাজিয়া আফরিন বলেন কেউ গুজবে কান দিবেননা, লবন আমাদের দেশে উৎপাদিত হয়, বাজারে লবনের কোন সংকট নেই। একটি মহল দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে এমন গুজব ছড়িয়ে চলেছে। তিনি আরও বলেন যারা পণ্য মজুদ রেখে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে মূল্য বৃদ্ধি করবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এসময় বাজার পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেন দেবহাটা থানার অফিসার ইনচার্জ বিপ্লব কুমার সাহা, এস আই নয়ন চৌধুরী, এ এস আই রশিদুল, ইউপি সদস্য আকবর আলী, মোকলেছুর রহমান প্রমুখ।

ডোমার (নীলফামারী): নীলফামারীর ডোমারে অতিরিক্ত দামে লবণ বিক্রির অভিযোগে তিন ব্যবসায়ীকে আটক করেছে ডোমার থানা পুলিশ। আজ মঙ্গলবার বিকালে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন ডোমার পৌরসভা ১নং ওয়ার্ডের কলেজ পাড়ার মৃত মজিবর রহমানের পুত্র আনোয়ার হোসেন (৫৫) (আনোয়ার স্টোর ), ছোটরাউতা মৃত নিমাই মালাকারের পুত্র মঙ্গল মালাকার (৫০) ( মালাকার স্টোর) ও ছোটরাউতার দুলাল কর্মকারের পুত্র চঞ্চল কর্মকার (২৫) (দুলাল স্টোর)।

এ ব্যাপারে ডোমার থানার ওসি মো. মোস্তাফিজার রহমান জানান, অতিরিক্ত দামে লবণ বিক্রির অভিযোগে তিনজনকে আটক করা হয়েছে।

খালিয়াজুড়ী (নেত্রকোনা): নেত্রকোনার হাওরাঞ্চল খালিয়াজুরীর বিভিন্ন বাজারে হঠাৎ করে লবণের দাম বেড়েছে বলে গুজব ছড়িয়ে বেশি দামে লবণ বিক্রি করা হচ্ছে।

বেশি দরে লবণ বিক্রির অভিযোগে মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে খালিয়াজুরী উপজেলা সদরের পুরানহাটি এলাকার ব্যবসায়ী মো. হায়দার চৌধুরীকে আটক করেছে পুলিশ।

খালিয়াজুরি থানার ওসি এটিএম মাহমুদুল হক বলেন, ব্যবসায়ী হায়দার বাজারের একটি পাইকারি দোকান থেকে ২০ বস্তা লবণ কিনে তিনি তার দোকানে এনে বেশি দামে লবণ বিক্রি করছিলেন একই সঙ্গে তিনি লবণের দাম বৃদ্ধির গুজব ছড়াচ্ছিলেন। তাই পুলিশ তাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

নারায়ণগঞ্জ: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে লবণের মূল্য বৃদ্ধির গুজব ছড়িয়ে পরলে লবণ কেনার জন্য নারায়ণগঞ্জের নিতাইগঞ্জ মোকামে ভিড় করেন বিভিন্ন এলাকার পাইকারি ও খুচরা ব্যবসায়ীরা। তবে নিতাইগঞ্জ মোকামের বিক্রেতারা জানান, দাম বাড়ানোর বিষয়টি তাদের জানা নাই। আগের দামেই বিক্রি করছেন লবণ

এদিকে নিতাইগঞ্জে ‘ফেসবুকে’ লবণের দাম বৃদ্ধির গুজব ছড়ানোর অভিযোগে আবদুল করিম নামের এক যুবককে আটক করেছে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশ। নিতাইগঞ্জ মোকামে পুলিশের একাধিক টিম টহল দিতেও দেখা গেছে।

রাজশাহী ব্যুরো: পেঁয়াজের পর এবার লবণ নিয়ে ধুন্ধুমার কাণ্ড ঘটে গেছে রাজশাহীতে। রাজশাহীর বিভিন্ন বাজারে লাইন দিয়ে লবণ কেনার হিড়িক পড়ে যায়। সন্ধ্যার পর জেলা প্রশাসনের ভ্রমমাণ আদালত সাহেববাজার এলাকায় তিনজন খুচরা লবণ ব্যবসায়ীকে আটক করেছেন। আটককৃতদের নাম ঠিকানা জানা যায়নি। তাদের বিরুদ্ধে কি ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে তা এই প্রতিবেদন তৈরির সময় পর্যন্ত জানা যায়নি।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ দপ্তরের উপ-পরিচালক মঞ্জুর শাহরিয়ার বলেন, গুজব সৃষ্টি করে লবণের দাম বাড়ানোর দায়ে তিনজনকে আটক করা হয়েছে। রাজশাহীতে বাজারে লবণের কোন সঙ্কট নেই। গুজব সৃষ্টি করে একটি চক্র ফায়দা লোটার চেষ্টা করেছে। ভ্রমমাণ আদালতের অভিযান চলাকালেই রাজশাহীর বিভিন্ন বাজারে লবণের দাম আগের অবস্থায় রয়েছে বলে জানান তিনি।

ঠাকুরগাঁও: গুজবের ছড়ানোর অভিযোগ ও অতিরিক্ত মূল্যে লবণ বিক্রি করার দায়ে ঠাকুরগাঁওয়ে তিন ব্যবসায়ীকে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রমমাণ আদালত। মঙ্গলবার বিকালে কালীবাড়ি বাজারের মাসুদ, সিরাজুল ইসলাম ও নবাবকে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল মামুন।

এদিকে গুজবের ছড়ানোর অভিযোগ ও অতিরিক্ত মূল্যে লবণ বিক্রি করার দায়ে দুই ব্যবসায়ীকে অর্থদণ্ড দিয়েছেন ভ্রমমাণ আদালত।

মঙ্গলবার বিকালে জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে পরিচালিত ভ্রমমাণ আদালত শহরের বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অভিযান চালিয়ে সিরাজুল ও সারওয়ার হোসেন নামে দুই ব্যবসায়ী এক লাখ টাকা জরিমানা করেন।

জেলা প্রশাসক কে এম কামরুজ্জামান সেলিম সাংবাদিকদের বলেন, পাইকারি বাজারে লবণের সঙ্কট না থাকলেও অসাধু চক্রের কারসাজীতে লবণ সঙ্কটের গুজব ছড়ানো হয়।

গৌরনদী (বরিশাল): নির্ধারিত দামের চেয়ে অতিরিক্ত দামে লবণ বিক্রি করায় বরিশালের গৌরনদী উপজেলা থেকে দুই ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার মাহিলাড়া বাজার থেকে তাদের আটক করা হয়।

গৌরনদী মডেল থানার এসআই মিজানুর রহমান জানান, লবণের অতিরিক্ত দাম দাবি করায় মাহিলাড়া বাজারের ব্যবসায়ী স্বপন ও সবুজ চোকদারকে আটক করা হয়েছে।

লালমনিরহাট: লালমনিরহাটের সদর ও আদিতমারী উপজেলায় গুজব ছড়িয়ে অতিরিক্ত দামে লবণ বিক্রি করায় ৪ ব্যবসায়ীকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড ও একজনকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়শ্রী রাণী রায় জানান, মঙ্গলবার বিকালে সদর উপজেলার আজহারুল (৬৫), ওবায়দুল (৪০) ও খায়রুল (৩২) নামে ৩ ব্যবসায়ীকে ৭ দিন করে কারাদণ্ড এবং ব্যবসায়ী বিনয় কৃষ্ণকে (৩২) ৬ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এছাড়া একই কারণে আদিতমারী উপজেলার হাবীব স্টোরের মালিক নূর ইসলাম ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

মাধবপুর (হবিগঞ্জ): হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজারে লবণের দাম বৃদ্ধির গুজব ও অতিরিক্ত দামে লবণ বিক্রির অভিযোগে ৮ জন ব্যবসায়ীকে ৫১ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

মঙ্গলবার মাধবপুর উপজেলা কর্মকর্তা তাসনূভা নাশতারাণ ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) আয়েশা আক্তার লবণের দাম বৃদ্ধির গুজবে উপজেলা সদরসহ ধর্মঘর, চৌমুহনী, মনতলা, হরষপুর, নয়াপাড়া, জগদীশপুর, ছাতিয়াইন ও কালিকাপুর বাজারে বিভিন্ন মুদি দোকানে মনিটরিং করেন। এ সময় অতিরিক্ত মূল্যে লবণ বিক্রির অভিযোগে ৮ জন ব্যবসায়ীকে নগদ ৫১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

মদন (নেত্রকোনা): নেত্রকোনার মদন উপজেলার বিভিন্ন খুচরা ও পাইকারি বাজারে গুজব ছড়িয়ে লবণের দাম বৃদ্ধি করায় দুই ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেছেন ভ্রমমাণ আদালত।

মঙ্গলবার পৌরসদরসহ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ২ ব্যবসায়ীকে ৪ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রমমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. ওয়ালীউল হাসান।

ওসি মো. রমিজুল হককে সঙ্গে নিয়ে বিভিন্ন খুচরা ও পাইকারি বাজারে গিয়ে অধিক মূল্যে লবণ বিক্রি না করার জন্য ব্যবসায়ীদের সতর্ক করেন ইউএনও।

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর): পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় বেশি দামে লবণ বিক্রির দায়ে মেসার্স অভি স্টোরের মালিক সুধন সাহাকে ১০ হাজার ও মেসার্স মা মনসা ভাণ্ডারের মালিক দিলিপ সাহাকে ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার বিকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রিপন বিশ্বাস উপজেলার পৌর শহরের বাজারের দোকানগুলোতে অভিযান চালান।

এ দিকে লবণের মূল্যবৃদ্ধির গুজবে কান না দেয়ার জন্য মাইকিং করে সচেতন করা হচ্ছে।

সখীপুর (টাঙ্গাইল): টাঙ্গাইলের সখীপুরে অতিরিক্ত মূল্যে লবণ বিক্রির অভিযোগে সাবাস খান নামের এক ব্যবসায়ীকে এক লাখ টাকা জরিমানা করেছে ভ্রমমাণ আদালত। মঙ্গলবার বিকেলে পৌর এলাকার শালগ্রামপুর সড়কে সাবাস স্টোরে এ ঘটনা ঘটেছে।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আয়শা জান্নাত তাহেরা এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। এ সময় সখীপুর থানার ওসি মো. আমির হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ): গুজব ছড়িয়ে অধিক মূল্যে লবণ বিক্রয় করার অভিযোগে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে দুই ব্যবসায়ীকে ৬০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় উপজেলার বিভিন্ন হাটবাজারে ভ্রমমাণ আদালত পরিচালনা করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার উম্মে রুমানা তুয়া জাটিয়া বাজারে অধিক মূল্যে লবণ বিক্রয় করায় ব্যবসায়ী হজরত আলীকে ৪০ হাজার টাকা ও এনামুল হাসানকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এছাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার উপজেলায় লবণের বাজার মূল্য স্থিতিশীল রয়েছে বলে মাইকিংয়ের মাধ্যমে প্রচার চালান।

 

 

 

More News


সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জিল্লুর রহমান

বাসা ও অফিস: পুরাতন সাতক্ষীরা, যোগাযোগ: ০১৭১৬৩০০৮৬১ - e-mail: zsatkhira@gmail.com