September 4, 2019
দুর্গত ও অগ্নিকাণ্ডে আশ্রয়হীন মানুষের কল্যাণে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে -মিয়া গোলাম পরওয়ার

বাংলাদেশ শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার বলেছেন, শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশেন শুধু শ্রমিকদের কল্যাণে কাজ করে না বরং আর্ত-মানবতার কল্যাণে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। মানবতার মুক্তি ও কল্যাণই এই আদর্শবাদী শ্রমিক সংগঠনের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য। সে উদ্দেশ্যকে সামনে রেখেই আজ আমরা অতিনগণ্য সাহায্য নিয়ে অগ্নিদুর্গত মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছি। এতে কেউ উপকৃত হলে আমাদের প্রচেষ্টা সার্থক হয়েছে বলে মনে করবো। তিনি দুর্গত ও অগ্নিকাণ্ডে আশ্রয়হীন মানুষের কল্যাণে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার জন্য সরকার, বিত্তবান মানুষসহ ফেডারেশনের সকল পর্যায়ের নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।
গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর রূপনগরে চলন্তিকা বস্তিতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে আর্থিক সাহায্য বিতরণকালে তিনি এসব কথা বলেন। শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের ঢাকা মহানগরী উত্তরের সহ-সভাপতি মিজানুল হকের সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারি এইচ এম আতিকুর রহমানের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন। উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি লস্কর মোহাম্মদ তসলিম, ঢাকা মহানগরী উত্তরের উপদেষ্টা মাহফুজুর রহমান ও ইঞ্জিনিয়ার গোলাম মোস্তফা, পল্লবী থানা উপদেষ্টা আশরাফুল আমল ও শ্রমিক নেতা আবুল কালাম পাঠান প্রমুখ।
অধ্যাপক মিয়া পরওয়ার বলেন, শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশন একটি আদর্শবাদী ও কল্যাণকামী শ্রমিক সংগঠন। আমদের উদ্দেশ্য হলা ইসলামী শ্রমনীতি ও ন্যায়-ইনসাফের ভিত্তিতে শ্রমিক সমাজের সকল সমস্যার ইনসাফপূর্ণ সমাধান করা। মূলত ইসলামী শ্রমনীতিই পারে শ্রমিকদের যাবতীয় সমস্যার সমাধান করতে। কিন্তু দেশে ইসলামী শ্রমনীতি চালু না থাকায় আমাদের দেশের শ্রমিক সমাজ এখনও নির্যাতিত, নিপীড়িত ও অধিকার বঞ্চিত। তাই শ্রমিক সমাজসহ মানবতার সর্বিক মুক্তি ও মানবজীবনের সকল সমস্যার সমাধানের জন্য আমাদেরকে ইসলামী আদর্শের দিকেই ফিরে আসতে হবে। তিনি দেশে ইসলামী শ্রমনীতি ও ইনসাফভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠার আন্দোলনে সকলে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানান।
তিনি বলেন, শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশন একটি আদর্শবাদী ও কল্যাণকামী শ্রমিক সংগঠন হওয়ায় দুর্দশাগ্রস্ত মানুষের দুর্দশা লাঘবের দায় কোনোভাবেই এড়াতে পারে না। আর সে দায়বদ্ধতা থেকেই আজ আমরা আমাদের সামর্থ অনুযায়ী অগ্নিদুর্গতদের কল্যাণে যৎসামান্য সাহায্য নিয়ে হাজির হয়েছি। মূলত এ দায়িত্ব রাষ্ট্রের। কিন্তু দেশে ন্যায়-ইনসাফের সমাজ প্রতিষ্ঠিত না থাকায় প্রান্তিক জনগোষ্ঠী রাষ্ট্রের কল্যাণ থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। সুবিধা পাচ্ছে ধনিক শ্রেণির মানুষ। দেশ ও জাতিকে এই অব্যবস্থাপনা ও দৈন্যতা থেকে মুক্ত করতে হলে দলমত নির্বিশেষ সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। তিনি অসহায় মানুষের কল্যাণে কাজ করতে সমাজের সকল স্তরের মানুষের প্রতি আহ্বান জানান।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন বলেন, দেশে অগণিত শ্রমিক সংগঠন রয়েছে। তারা শ্রমিকদেরকে বিভিন্ন সময়ে চটকদার প্রতিশ্রুতি দিলেও বিপদের সময়ে তাদেরকে খুঁজে পাওয়া যায় না। ক্ষমতাসীনরা শ্রমিক শ্রেণি ও প্রান্তিক জনগোষ্ঠীসহ সাধারণ মানুষকে ক্ষমতায় যাওয়ার অনুসঙ্গ বানালেও তারা এসব নিম্নবিত্তের মানুষের তেমন কিছুই করেনি। কিন্তু এক্ষেত্রে শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশন ব্যতিক্রম। তারা সুখে-দুঃখে সব সময়ই মানুষের কল্যাণে কাজ করে আসছে। তিনি সাধারণ মানুষের মুক্তির জন্য শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের পতাকা তলে সকল শ্রেণির শ্রমিকদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

More News


সম্পাদক ও প্রকাশক মো: জিল্লুর রহমান

বাসা ও অফিস: পুরাতন সাতক্ষীরা, যোগাযোগ: ০১৭১৬৩০০৮৬১ - e-mail: zsatkhira@gmail.com