January 16, 2019
কলারোয়ায় সরিষা ক্ষেতে মধু সংগ্রহে ব্যস্ত মধু আহরণকারীরা

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় মাঠে মাঠে এখন সরিষার হলুদ ফুলের অপরূপ দৃশ্য। পুরো মাঠ যেন ঢেকে আছে সুন্দর এক হলুদ পরিবেশ। আর সরিষা ফুলের ক্ষেতে মধু সংগ্রহে ব্যস্ত সময় পার করছেন মধু আহরণকারীরা।

সরিষা লাগানো জমির পাশে পোষা মৌমাছির শত শত বাক্স নিয়ে হাজির হয়েছেন মৌয়ালরা। ওইসব বাক্স থেকে হাজার হাজার মৌমাছি উড়ে গিয়ে মধু সংগ্রহে ঘুরে বেড়াচ্ছে সরিষা ফুলের মাঠে। এই অপরূপ দৃশ্যে মুগ্ধ স্থানীয় শিশু কিশোর থেকে শুরু করে প্রকৃতি প্রেমীসহ সকল শ্রেণীর মানুষ।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের বেশিরভাগ ফসলি জমিতে সরিষার আবাদ করা হয়েছে। এসব জমিতে সরিষার ফুল ফুটতে শুরু করায় সেই ফুলের মধু আহরণে নেমেছেন পেশাদার মৌয়ালরা। তাদের বাক্স থেকে ভনভন করে দলে দলে উড়ে যাচ্ছে পোষা মৌমাছি। ঘুরে বেড়াচ্ছে এই ফুল থেকে অন্যে ফুলে আর সংগ্রহ করছে মধু। মুখ ভর্তি মধু সংগ্রহ করে মৌমাছিরা ফিরে যাচ্ছে মৌয়ালদের বাক্সে রাখা মৌচাকে। সেখানে সংগৃহিত মধু জমা করে আবার ফিরে যাচ্ছে সরিষার জমিতে। এভাবে দিনব্যাপী মৌমাছিরা যেমন মধু সংগ্রহ করে আবার বিভিন্ন ফুলে ফুলে ঘুরে বেড়াতে গিয়ে পুরো ফুলের পরাগ আর এক ফুলে দিয়ে সহায়তা করে।

এ মৌসুমে মৌয়ালরা পোষা মৌমাছি দিয়ে প্রচুর মধু উৎপাদন করে যেমন লাভবান হচ্ছেন, ঠিক তেমনি মৌমাছির ব্যাপক পরাগ সরিষার বাম্পার ফলন হওয়ার সম্ভাবনায় চাষিরাও বাড়তি আয়ের আশা করছেন। উপজেলার কেঁড়াগাছি ইউনিয়নের লোহাকুড়া, বাগাডাঙ্গা, কাঁকডাঙ্গা, কেঁড়াগাছি, বোয়ালিয়া, ভাদিয়ালী গ্রামে ব্যাপক হারে সরিষার মধু চাষ হচ্ছে। পোষা মৌমাছি দিয়ে মধু সংগ্রহে আসা কয়েকজন পেশাদার মৌয়ালদের সাথে কথা বলে জানা যায় তারা প্রতিবছরের ন্যায় এ বছরও পোষা মৌমাছির বাক্স নিয়ে মধু সংগ্রহের লক্ষ্যে উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় এসেছে মধু চাষ করতে।

তাদের কাছে ১শ’ থেকে ২শ’ টির বেশি বাক্স সরিষা ফুলের বাগানের পাশে রেখেছেন। এ বছর প্রতি সপ্তাহে গড়ে ৮ মণ মধু সংগ্রহ করতে পারছেন এমনটাই জানালেন মৌয়ালরা।

এমনকি কয়েকটি মাঠে তাবু ফেলে সাময়িক বসতের ব্যবস্থা করেছেন নিজেদের নিরাপদে রেখে।

একই রকম সংবাদ


আলোর পরশ ( সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক প্রকািশত) ৩০২/১-এ-নতুন পল্টন ঢাকা ১০০০. http://alorparosh.com/

Copyright © 2017 alorparosh.com. All rights reserved.