November 6, 2018
গালগপ্পো বানিয়ে আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিকে ফাঁসানোর চেষ্টা

আলোরপরশ নিউজঃ

গালগপ্পো বানিয়ে ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সলর (ভিসি) অধ্যাপক ড. অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আহসান উল্লাহকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হয়েছে। তবে সে চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে।

জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঐকান্তিক ইচ্ছায় দেশের নবীন এই পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়টিতে ব্যাপক উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড পরিচালিত হচ্ছে। নিয়োগ, উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে বেআইনি সুবিধা আদায় করতে না পেরে সামাজিকভাবে তাকে হেয়-প্রতিপন্ন করার কৌশল নিয়েছে একটি পক্ষ। ভিসিকে বেকায়দায় ফেলতে গত শনিবার চট্টগ্রামে সপরিবারে থাকা বাসা ঘেরাও করে গুটি কয়েক লোক। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে ভিসি পুলিশের সহায়তায় তার পরিবারকে উদ্ধার করেন।

এ প্রসঙ্গে চট্টগ্রাম থানার ওসি মো. আবুল বাশার বলেন, পুলিশ বাড়ি ঘেরাওয়ের সংবাদ পেয়ে সেখানে ছুটে যান। তবে লোকজন যে অভিযোগ করেছেন; তখন ভিসিকে সেখানে পাওয়া যায়নি। আর অভিযোগের কোনো সত্যতা মেলেনি।

ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আহসান উল্লাহ বলেন, দেশের আলেম-ওলামাদের শত বছরের স্বপ্ন পূরণ হয়েছে ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের উঐিভফহিস হিসেবে বিশ্বমানের উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তুলতে নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। নিয়োগ ও উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে বেআইনি আবদার পূরণ না হওয়ায় একটি পক্ষ দীর্ঘদিন ধরে আমাকে বেকায়দায় ফেলার চেষ্টা করছে। তা করতে না পারে সামাজিকভাবে আমাকে হেয়-প্রতিপন্ন করতে চাচ্ছে। সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট ও উদ্ভট ঘটনা সাজিয়ে আমাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশে যারা হাদিস গবেষণায় অগ্রণী ভূমিকা পালন করছেন তাদের মধ্যে অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আহসান অন্যতম। তিনি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপনা করেন এবং একই বিভাগের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেছেন। গবেষণা ছাড়াও সাহিত্যের বিভিন্ন শাখায় তার বিচরণ। সাহিত্য জগতে আহসান সাইয়েদ নামে তিনি সমধিক পরিচিত। সুধী মহলে তিনি বহুমাত্রিক লেখক হিসেবে পরিচিত। বহুমুখী প্রতিভা নিয়েই আধুনিক বাংলা সাহিত্যে তার দীপ্ত আর্বিভাব। সাহিত্যের শাখায় তার সর্দপ বিচরণ তাই প্রমাণ করে। ২০১৩ সালে ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পর অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আহসান উল্লাহ ভিসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

ইতিমধ্যেই আধুনিক চিন্তাশীল ধর্মীয় ব্যক্তিত্ব হিসেবে অধ্যাপক আহসান উল্লাহ ব্যাপক সুনাম অর্জন করেছেন। কবিতা, গল্প, নাটক, উপন্যাস ও গবেষণাসহ বহু বিচিত্র বিষয়ে তাঁর বহু গ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে। মিশরীয় লেখক নোবেল বিজয়ী নাজীব মাহফুজের ছোটগল্প ও সেরা আরব নাট্যকার তওফীক আল-হাকীমের নাটকের বাংলা অনুবাদ গ্রন্থ তাকে এনে দিয়েছে বিরল খ্যাতি। তার মৌলিক গল্পগ্রন্থ মাঝরাতে বৃষ্টি (গল্পগ্রন্থ), গৃহবধূ পিঞ্জরের পাখি (রম্যরচনা), আপোফিসের স্বপ্ন (গল্পগ্রন্থ) ভাষা ও রচনাশৈলী সাহিত্যসমাজে বেশ আলোড়ন তুলেছে। তিতাসের অট্টহাসি কিশোরদের জন্য তাঁর অনবদ্য সৃষ্টি। হাইজ্যাকারের পাল্লায় এ গল্পগ্রন্থ কিশোরদের জন্য তার দ্বিতীয় প্রয়াস। নাট্যকার হিসেবেও তিনি শক্তিমত্তার পরিচয় দিয়েছেন। ইতোমধ্যে তার কয়েকটি নাটক মঞ্চস্থ হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত শনিবার একটি স্বার্থান্বেষী মহল তার বিরুদ্ধে বলাৎকারের অভিযোগ এনে চট্টগ্রামের চান্দগাঁও আবাসিক এলাকায় তার বাসভবন ঘেরাওয়ের চেষ্টা করে। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে এ ধরণের কোনো অভিযোগের সত্যতা না পেয়ে অবরোধকারীদের হটিয়ে দেয়।

ভিসি বর্তমানে ঢাকায় ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়ে তার প্রশাসনিক দায়িত্ব পালন করছেন বলে জানা গেছে।

একই রকম সংবাদ


আলোর পরশ ( সম্পাদক ও প্রকাশক কর্তৃক প্রকািশত) ৩০২/১-এ-নতুন পল্টন ঢাকা ১০০০. http://alorparosh.com/

Copyright © 2017 alorparosh.com. All rights reserved.